ঋতুরাজ বসন্তের প্রথম দিন আজ


নির্ভীক সংবাদ24   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

নির্ভীক সংবাদ প্রতিবেদক: আজ পলাশ বনে ছড়িয়ে রংয়ের আগুন, ঋতুপরিক্রমায় ফিরে এলো পহেলা ফাগুন, যেদিকে চাই শুধুই দেখি রংয়ের মেলা, বসন্ত আজ অলিন্দে তাই করছে খেলা। পহেলা ফাগুন ঋতুরাজ বসন্তের প্রথম দিন আজ সোমবার। প্রভাতের নবীন ঊষা বাংলার প্রকৃতিতে ঋতুরাজের দোলা নিয়ে আসলো। নবযৌবনের প্রতীক বসন্তকাল।
পল্লিকবির ভাষা ও প্রকাশভঙ্গি এক রকম, আধুনিক কবির ভাব ও আবেগের প্রকাশভঙ্গি আরেক রকম। যে যেভাবেই বলুক, বসন্ত বয়ে আনে নতুনের বার্তা। পুরোনো, জরা, প্রাণহীনতাকে পরিত্যাগ করার ঘোষণা থাকে বসন্তের বাতাসে। গাছের পুরোনো পাতা ঝরে পড়ে। বনের ভেতর থেকে হঠাৎ হঠাৎ ডেকে ওঠে কোকিল। উতলা মন প্রাণের মানুষকে খোঁজে। শীতের জড়তা কাটিয়ে, আজ সকালে ঘুম ভেঙেছে ফাগুনের দখিনা সমীরণে। বসন্তের আগমনী বার্তা নিয়ে ইতিমধ্যে কোকিল তার সুরেলা গলায় গান শুনিয়ে গ্রামবাংলার বনবাদাড় মুখরিত করে তুলেছে।

এমনকি ইট-কাঠ-পাথরের এ কৃত্রিম শহরেও কয়েকদিন ধরে কৃষ্ণপুচ্ছ পাখিটি তার প্রিয় ঋতুর আগমনী ঘোষণা করেছে। তবে এটা ঠিক, প্রকৃতির পরিবর্তন ঘটেছে। ৫০ বছর আগের মতো বনে বনে ফাগুনে আজ আর কোকিল ডাকে না। পলাশ, শিমুল ও মান্দার বৃক্ষ বিলুপ্ত হওয়ার পথে। সেসব গাছের ডালে থোকা থোকা রক্ত চোখে পড়ে না। আমগাছও কমে গেছে। আমের মুকুলের সোঁদা গন্ধে চারদিক ম-ম করে না। কবিগুরু যখন জাতীয় সংগীত ‘আমার সোনার বাংলা’ লিখেছিলেন, তখন ফাগুনে আমের বনের ঘ্রাণে পাগল করত।
প্রকৃতির মাঝে বেড়ে ওঠা এ দেশের অসংখ্য নদী বিধৌত জনপদের কূলে কূলে যে সংস্কৃতি বিকশিত হয়েছে তার মধ্যে নিসর্গের রূপে সংস্কৃতির পালাবদলও ঘটেছে। বৈশাখ থেকে ফাগুন শুধুমাত্র ঋতু বৈচির্ত্য হিসেবে ধরা দেয় না এদেশের উৎসবপ্রবণ মানুষের মাঝে বরং সংস্কৃতির নব বাতায়নও খুলে দেয়। যান্ত্রিক এই শহরের নাগরিকরা রূপের ঋতু ফাগুনকে নিয়ে অন্তহীন প্রেমের পক্তি রচনা করে। ফাগুন আজ বাঙালির নব জাগরণের, প্রণোদনার সংস্কৃতি হয়ে ওঠেছে। প্রকৃতিতে যেমন হলুদের ছোঁয়া ক্রমশই বৃদ্ধি পায় ফাগুনে তেমনি নাগরিক পোশাকও রঙ বদলায় ফাগুনের রঙে।
বসন্ত মানেই সুন্দরের জাগরণ। নবীনের আগমন। চিরায়ত সুন্দর, ভালোবাসা আর যৌবনের প্রতীক এ বসন্ত। বসন্তের রোদেলা দুপুরে, মন উদাস করা খ্যাপা বাতাসে কিংবা মায়াভরা আবির ছড়ানো গোধূলিলগ্নে, বসন্ত বাতাসের স্নিগ্ধ পরশে প্রকৃতিতে আনন্দধারা বয়ে যায়। বসন্তের আগমনে হৃদয় পুলকিত আর আন্দোলিত হয় বলেই কবিরা আকাশে চোখ মেলে তাকাতেই যেন জ্বলে ওঠে আলো। আর তাই সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে সুর মিলিয়ে বলতেই হয়- ‘ফুল ফুটুক আর নাই ফুটুক আজ বসন্ত।’
নির্ভীক সংবাদ ডটকম

Total view = 301