• মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০৯:৪৮ অপরাহ্ন



এক ম্যাচে শান্তর সেঞ্চুরি, কামরুলের হ্যাটট্রিক ও রাজশাহীর রান উৎসব

Reporter Name / ১২৭ Time View
Update : মঙ্গলবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২০



নির্ভীক সংবাদ ডেস্ক: এক ম্যাচে অনেককিছু ঘটলো। টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মতো কোন দল দুশো’র ওপরে স্কোর তুলল। এই প্রথম কোন ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরি পেলেন। একজন বোলার হ্যাটট্রিকও করলেন! এক ওভারে চার উইকেট পড়ল! ওপেনিং জুটিতে এলো সেঞ্চুরির আনন্দ। ব্যাটিং দাপট দেখানো দলের নাম মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী। সেঞ্চুরি পাওয়া ব্যাটসম্যান হলেন দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। হ্যাটট্রিক করা বোলার বরিশারের কামরুল ইসলাম রাব্বী। ইনিংসের শেষ ওভারে রাব্বী হ্যাটট্রিকসহ চার উইকেট শিকার করলেন। ফরচুন বরিশালের বিরুদ্ধে টুর্নামেন্টে টিকে থাকার এই ম্যাচে রাজশাহী তুলল ৭ উইকেটে ২২০ রানের বিশাল স্কোর। নাজমুলের ব্যাট হাসল ৫৫ বলে ১০৯ রানের সেঞ্চুরিতে।

এই রান তাড়া করে জিততে না পারলে ফরচুন বরিশালের জন্য বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের যাত্রা এখানেই শেষ! পরের দুই ম্যাচ তখন তাদের জন্য নেহাৎ আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচে পরিণত হবে।

টসে হেরে রাজশাহী ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে। ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত ও আনিসুল হক ওপেনিং জুটিতে তুললেন ১৩১ রান। ১২.২ ওভারে এলো এই রান। আনিসুল ৩ ছক্কা ও ৭ বাউন্ডারিতে ৩৯ বলে করেন ৬৯ রান। অপরপ্রান্তে অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্তর ব্যাটেও তখন আগুন ঝরছে। ৩২ বলে নিজের হাফসেঞ্চুরি পাওয়ার পর শান্তর ব্যাট হয়ে উঠলো অশান্ত! ১১ ছক্কা ও ৪ বাউন্ডারির ঝড় তুলে শান্ত মাত্র ৫২ বলে তার সেঞ্চুরি পুরো করলেন। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে এটি কোন ব্যাটসম্যানের প্রথম সেঞ্চুরি।

রাজশাহীর ঝড়ো ব্যাটিংয়ের সামনে বরিশালের বোলিং আক্রমণ ভেঙ্গেচুরে একাকার। শান্ত ৯৬ রান থেকে সেঞ্চুরিতে পৌঁছালেন ছক্কা হাঁকিয়ে। তাসকিনকে মিড উইকেটের ওপর দিয়ে ছক্কা হাঁকিয়ে শান্ত তিন অংকে পৌঁছে গেলেন। সেঞ্চুরির আনন্দে হাতের মাসল দেখিয়ে শান্ত জানান দিলেন- এই ম্যাচে ‘রাজত্ব’ করতেই নেমেছিলেন তিনি!

পুরো ম্যাচে বেচারা হয়ে থাকা বরিশালের বোলিংয়ে সান্ত্বনার প্রলেপ দিলেন কামরুল ইসলাম রাব্বী। ইনিংসের শেষ ওভারে প্রথম তিন বলে রাব্বী তিন উইকেট তুলে নিয়ে হ্যাটট্রিক করলেন। চতুর্থ বলে বাউন্ডারি। পঞ্চম বলে আরেকটি উইকেট। শেষ বলে ছক্কা।

হ্যাটট্রিক। বাউন্ডারি। ছক্কা। এক ওভারে সবকিছুরই দেখা মিলল। এই প্রথম কোন বোলার হ্যাটট্রিক করার পরও আনন্দে মেতে উঠলেন না। স্কোরবোর্ডে প্রতিপক্ষ যে তখন দুশোর বেশি রান তুলে ফেলেছে! তাই আনন্দ করার সুযোগ কই?

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

রাজশাহী : ২২০/৭ (২০ ওভারে, শান্ত ১০৯, আনিসুল ৬৯, সুমন খান ২/৪৩, কামরুল ইসলাম রাব্বী ৪/৪৯)।

নির্ভীক সংবাদ ডটকম




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category