এশিয়ান ইউনিভার্সিটি’র রজতজয়ন্তী


নির্ভীক সংবাদ24   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ৫ জানুয়ারী, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর রজতজয়ন্তী অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল এশিয়ান ইউনিভার্সিটি’র আশুলিয়া ক্যাম্পাস থেকে বিডিরেন জুম এর মাধ্যমে এই আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি। সভাপতিত্ব করেন এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর প্রতিষ্ঠাতা ও উপাচার্য এমিরেটাস প্রফেসর ড. আবুল হাসান মুহাম্মদ সাদেক। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাননীয় মন্ত্রী বলেন, এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারন করে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের বিনা খরচে পড়াশোনার সুযোগ করে দিচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। আমি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করি। দক্ষমানবসম্পদ উন্নয়নে তাদের সার্বিক কার্যক্রম অব্যাহত থাকুক এই প্রত্যাশা করছি রজতজয়ন্তীর এই ক্ষনে। সভাপতির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও উপাচার্য এমিরেটাস প্রফেসর ড. আবুল হাসান মুহাম্মদ সাদেক বলেন, ১৯৯৬ সালে দেশমাতৃকার প্রয়োজনে দক্ষ, যোগ্য ও নৈতিকতা সম্পন্ন মানবসম্পদ গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠিত হয় এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ। বাংলাদেশকে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়ে তুলতেই এগিয়ে চলছে এইউবি। মানসম্মত শিক্ষা, মানসম্মত সেবা এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখেই ২৫ বছর যাবত আমাদের সার্বিক কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। মানসম্মত শিক্ষার বিকল্প নেই, সৎ ও যোগ্য দক্ষ জনশক্তি তৈরীতে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি বদ্ধ পরিকর।

রজতজয়ন্তীতে শুভেচ্ছা জানিয়ে বাণী দিয়েছেন মহামান্য রাষ্ট্রপতি, বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের চ্যান্সেলর, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রীবর্গ, এমপি, জন প্রতিনিধি, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, অষ্ট্রেলিয়া,মালয়েশিয়া,ইউক্রেনসহ বিশে^র বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, শিক্ষাবিদ, সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিবর্গ, কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানসমূহ ।
এছাড়াও এই উপলক্ষে বর্ষব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয়েছে যার মধ্যে রয়েছে জাতীয় ও আন্তজার্তিক সেমিনার,ওয়ার্কশপ,এ্যালামনাই মিলনমেলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, গুনীজন সংবর্ধনা, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, ম্যাথঅলিম্পিয়াডসহ নানা আয়োজন।
আশুলিয়ার সুপরিসর স্থায়ী ক্যাম্পাসে এর শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।
মূল্যবোধ সমন্বিত শিক্ষার আলো বিতরনের প্রত্যয় নিয়ে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হয়। গত ২৫ বছর যাবত এ বিশ্ববিদ্যালয় দক্ষ মানবসম্পদ তৈরীতে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে আসছে, যারা দেশে ও বিদেশে সরকারি ও বেসরকারি উভয় ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ন অবদান রাখছে। শিক্ষার ব্যয় কম হওয়ায় এ বিশ্ববিদ্যালয়ে গরীব ও গ্রামীণ শিক্ষার্থীরাও লেখাপড়া করতে পারছে। এছাড়াও রয়েছে ছাত্রবৃত্তি, বেতন মওকুফ, খ-কালীন কাজের সুযোগ। এতে আছে প্রায় ৭০% গ্রামীণ শিক্ষার্থী । এখানে শুধু বাণিজ্যিক বিষয়ই নয়, বরং জাতীয়ভাবে গুরুত্বপূর্ন বিষয়গুলো পড়ানো হয়, যার ফলে এটি একটি পূর্ণাংগ বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত হয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ফ্রি ট্রান্সপোর্ট সুবিধা এবং অল্প খরচে আবাসিক সুবিধা রয়েছে।

Total view = 127