দূর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তারের অবহেলায় রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ


নির্ভীক সংবাদ24   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীর দূর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসকের অবহেলায় বিনা চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।

শ্বাসকষ্ট জনিত একজনকে সোমবার(১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫ টার দিকে এ হাসপাতালে নেয়া হয়। তখন কর্তব্যরত চিকিৎসক জরুরি বিভাগে থেকেও করোনা রোগী সন্দেহে অবহেলায় বিনা চিকিৎকায় এ মৃত্যু হয় বলে নিহতের স্বজনদের অভিযোগ।

নিহত আকাশ(১৮) উপজেলার আলীয়াবাদ গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে।

এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের সদস্যরা সুষ্ট তদন্ত ও বিচারের দাবি জানিয়েছেন।

তবে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন, জরুরি বিভাগে আনার পরে ওই রোগীকে ঔষধ দিয়ে রিলিজ করা হয়েছিলো।

আকাশের মা বলেন, আমার ছেলের হঠাৎ বুকে ব্যাথা দম বন্ধ হয়ে আসার কথা বলে
পরে তাকে গাড়িতে করে এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে সেখানে কোনো চিকিৎসককে পাওয়া যায়নি, একজন এসে কয়টা ট্যাবলেট দিয়ে আমাদের চলে যেতে বলে।পরে আমি ছেলের কষ্ট দেখে, হাসপাতালে উপস্থিত নার্সসহ অন্যান্য কর্মকর্তার পায়ে ধরি কিন্তু কেউ আমার ছেলের পাশে আসেননি’ করোনা সন্দেহে।

এ হাসপাতালে প্রায়ই ডাক্তার থাকেন না বলে অভিযোগ করছেন স্থানীয় বাসিন্দা মনির মিস্ত্রী।
তিনি বলেন, এখানে আগত রোগীদের ডাক্তারা বিভিন্ন অজুহাতে শহরের ক্লিনিকে পাঠান। ওইসব ক্লিনিক মালিকদের সঙ্গে ডাক্তারদের গোপন কমিশন চুক্তি রয়েছে বলে তার অভিযোগ।

আকাশের বড় ভাই বলেন, “আমার ছোট ভাই আকাশ কথা বলতে বলতে আমাদের সামনেই মারা গেছে।“আমরা এক ডাক্তারকে নেবোলাইজার অথবা অক্সিজেন দিতে বলি তিনি আমাদের বলেন, ‘এটা আমাদের কাজ না’, স্যারের সঙ্গে কথা বলেন।”
“ঘণ্টাখানেক পর অবশ্য একজন ডাক্তার আসেন কিন্তু তিনি কিছু না বলেই চলে যান।”

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আসাদুজ্জামান তিনি নির্ভীক সংবাদ24 কে বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই, এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
নির্ভীক সংবাদ24ডটকম

Total view = 277