• রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন



বগুড়ায়  আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

Reporter Name / ৫৪ Time View
Update : বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১



বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়া সদর উপজেলার ফাঁপোর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মমিনুর ইসলাম রকিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বগুড়া শহরতলীর ফাঁপোড় ইউনিয়নের ফাঁপোড় হাটখোলায় তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। মমিনুল হক রকি ফাঁপোড় মন্ডলপাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে এবং তিনি ফাঁপোর ইউনিয়নের আসন্ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ছিলেন।

বগুড়া সদর উপজেলার ফাঁপোর ইউনিয়ন  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বগুড়া জেলা পুলিশের মিডিয়া মুখপাত্র ও সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ।

স্থানীয়রা জানান, নিহত রকি মসজিদে এশার নামাজ আদায় করে বাহি‌রে ঘোরা‌ফেরা ক‌রে বা‌ড়ি ফিরছিলেন।

এসময় মসজিদের পেছনে হাটখোলা এলাকায় পৌঁছালে ১৫ থেকে ২০ জন দুর্বৃত্ত রকিকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে মাথাসহ পুরো শরীরে কুপিয়ে জখম করে। তখন স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে অটোরিকশায় করে তিনমাথা ও পরে সিএনজিতে করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) নিয়ে আসে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসারা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফাঁপোর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট রাজু মন্ডল জানান, রকি আসন্ন ফাঁপোর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিলেন। রাজনীতির পাশাপাশি মাছের ব্যবসা ও চালের ডিলার ছিলেন। একই এলাকার সুদের কারবারি গাউসুল আজমের সঙ্গে তার বিরোধ ছিল। এ নিয়ে রাতে হাটখোলা এলাকায় মাঠের পশ্চিম পাশে বৈঠক করছিলেন। তখন একদল দুর্বৃত্ত হামলা চালিয়ে তাকে কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় তার সঙ্গে থাকা আরও ২-৩ জনকে মারধর করা হয়।

নিহতের খালাতো ভাই শাহাদত হোসেন সনি জানান, এলাকার মাদকাসক্ত ও বখাটে ছেলেরা আমার ভাইকে মেরেছে। আমার ভাই তাদের খারাপ কাজে বাধা দিত। এ নিয়ে শত্রুতার কারণে তারা আমার ভাইকে খুন করেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ জানান, আমারা প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছি কিছু বখাটে যুবক দ্বারা সে খুন হয়েছে। প্রাথমিকভাবে খুনিদের চিহ্নিত করে তাদের ধরতে অভিযান চলছে।

এদিকে রকি নিহতের খবরে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান শফিক, সাধারণ সম্পাদক মাহাফুজুল আলম রাজ, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আল রাজী জুয়েল শজিমেক এ স্বজনদের সঙ্গে দেখা করতে আসেন। এ সময় আবু সুফিয়ান বলেন, আমরা আমাদের সংগঠনের নেতা হত্যার বিচার চাই।

জেলা পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে নিহত রকি অস্ত্রসহ একাধিক মামলার আসামি।

নির্ভীক সংবাদ ডটকম।




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category