• সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৫৯ পূর্বাহ্ন

বরেন্দ্র সচেতন সমাজ’র বর্ষপূর্তি উদযাপন

Reporter Name / ২৭৮ Time View
Update : সোমবার, ১২ অক্টোবর, ২০২০

রাজশাহী প্রতিনিধি: বরেন্দ্র অঞ্চলের সেচ্ছাসেবী সংগঠন বরেন্দ্র সচেতন সমাজ এর প্রথম বর্ষপূর্তি উদযাপন করা হচ্ছে।
১০ অক্টোবর সন্ধ্যার ৫ টার সময় রাজশাহী নগরীর এক রেস্তোরাঁতে অনুষ্ঠান হয়।

এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ডাবলু সরকার,রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অফ এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ -আই ই আর এর প্রভাষক শেখ সেমন্তী, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রভাষক এবং বরেন্দ্র সচেতন সমাজ উপদেষ্টা রায়হানুজ্জামান সোহান, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মনিটরিং (প্লেনিং) তাসনিম আরা,রেডিও পদ্মার আর যে জান্নাতুল ফেরদৌস লিজা,মাছরাঙা টেলিভিশনের ক্যামেরা পার্সন মাহ্ফুজুর রহমান রুবেল। রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম সানি
অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বরেন্দ্র সচেতন সমাজ’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রায়হান রোহান।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সহ সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস জানান অনিক, সহ সাধারণ সম্পাদক তানভীর আহমেদ, সহ সাধারণ সম্পাদক শামিমা আরা লতা,সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী আল মাহমুদ (আকাশ) দপ্তর সম্পাদক শ্রী বিশাল চৌধুরী,সহ দপ্তর সম্পাদক আরাফাত হোসেন, অনুষ্ঠান বিষয় সম্পাদক হাসিবুল হাসান, বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক আবুল হাসান,সাবেক সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক জীবন আলী, নারী বিষয়ক সম্পাদক আসফিম ইসলাম,জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে কমিটির সদস্য ফয়সাল আহমেদসহ আরও অনেকে।

প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রায়হান রোহান বলেন একজন মানুষ তাঁর মনুষত্ব্য বিকাশ ও জীবনকে সঠিক পথে এগিয়ে নেওয়ার শিক্ষা অর্জন করে। তার জন্য প্রয়োজন প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি বাস্তবমুখী সৃজনশীল ধারার শিক্ষা। যেমন সাধারণ শিক্ষাসহ বিভিন্ন ধরনের শিক্ষা অর্জন করে, তেমনি এই সময় নিজের প্রতিভা, চরিত্র ও মানবিক গুণাবলি বিকাশ করারও যথেষ্ট সুযোগ পায়। সামাজিক সংগঠন থেকে অর্জিত শিক্ষাগুলো কাজে লাগানোর ওপর জোর দিচ্ছি। কারণ আজকের তরুণ প্রজন্মই আগামী দিনের ভবিষ্যতে অঙ্গকার ।

আমরা আদর্শ নাগরিক তখনই হবে, যখন তাদের মধ্যে দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করার মানসিকতা তৈরি হবে। তাই আমি মনে করি, ছাত্রজীবনেই শিক্ষার্থীদের মাঝে বাস্তবমুখী কাজ করার পরিবেশ তৈরি করতে হবে। আগামী দিনে তারাই দেশকে নেতৃত্ব দিবে এবং তরুণ প্রজন্মের ভাবনা নিয়ে আমরা কাজ করে যেতে চাই । আমাদের হাত ধরেই এগিয়ে যাবে জাতি। তাই পড়াশোনা করার পাশাপাশি সেচ্ছাসেবী সংগঠনের মাধ্যমে মানুষের কল্যাণে কাজ করার মানসিকতা, বাস্তব জগৎ সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করার তীব্র আকাঙ্ক্ষা ও অন্যকে সাহায্য করার প্রবল ইচ্ছা ছাত্রজীবন থেকেই তৈরি করতে হবে বলে আমি মনে করি।

তিনি আর বলেন তিল তিল করে গড়ে উঠেছে আমাদের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বরেন্দ্র সচেতন সমাজ আমি ধন্যবাদ দিয়ে আমার সহযোদ্ধাদের ছোট্ট করতে চাই না আপনার আমাদেরকে দোয়া করবেন যেন আগামী দিনেও সুন্দর ভাবে মানব কল্যাণে যে কাজ করে যেতে পারি।
নির্ভীক সংবাদ ডটকম


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category