মান-অভিমানের জের ধরে প্রেমিক-প্রেমিকার আত্মহত্যা


নির্ভীক সংবাদ24   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ২০ আগস্ট, ২০২০

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জে মান-অভিমানের জের ধরে গ্যাস ট্যাবলেট সেবন করে আত্মহত্যা করেছে প্রেমিক-প্রেমিকা। বুধবার রাতে প্রেমিকা মুক্তি খাতুনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। অপরদিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান প্রেমিক ইসমাইল হোসেন।

মুক্তি খাতুন জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার নলকা ইউপির পূর্ব ফরিদপুর গ্রামের মাসুদ রানার স্ত্রী। তিনি সিরাজগঞ্জ শহরের সমাজকল্যাণ মোড়ে একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। প্রেমিক ইসমাইল একই উপজেলার ঘুরকা ইউপির বাসুদেবকোল গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

মাসুদ রানা জানান, ইসমাইলের সঙ্গে তার স্ত্রী ভাই সম্পর্ক পেতেছিলেন। একপর্যায়ে এ সম্পর্ক পরকীয়ায় রূপ নেয়। মঙ্গলবার গভীর রাত পর্যন্ত বাড়ির বাইরে থাকেন মুক্তি ও ইসমাইল। রাত ১২টায় মুক্তি বাড়ি এসেই বমি শুরু করেন। এরপর জানান তিনি গ্যাস ট্যাবলেট সেবন করেছেন। পরে মুক্তিকে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখান থেকে চিকিৎসকরা বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল
কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন।তিনি বলেন, বগুড়ায় নেয়ার পথে জানতে পারি ইসমাইলও গ্যাস ট্যাবলেট সেবন করেছেন। পরে তাকে রায়গঞ্জের ষোলমাইল এলাকা থেকে অ্যাম্বুলেন্সে তোলা হয়। যাওয়ার পথেই মুক্তি মারা যান এবং বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ইসমাইলের মৃত্যু হয়।সিরাজগঞ্জ সদর থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা বলেন, রাতে অ্যাম্বুলেন্সে করে মুক্তির মরদেহ নিয়ে থানায় হাজির হন মাসুদ রানা। মরদেহ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে।

ঘুরকা ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান বলেন, বাসুদেবকোল গ্রামে ইসমাইল নামে এক যুবক গ্যাস ট্যাবলেট সেবন করে আত্মহত্যা করেছেন। পরকীয়া ও মান-অভিমানের জেরেই দুইজন আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।
নির্ভীক সংবাদ 24ডটকম

Total view = 234