রাজশাহীতে গাছে গাছে আগাম উঁকি দিচ্ছে আমের মুকুল


নির্ভীক সংবাদ24   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ২৮ জানুয়ারী, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলছে মাঘ মাস। ফাল্গুন আসতে এখনও অনেক বাকি। তীব্র শীতের মধ্যেই রাজশাহীর উপজেলাগুলোতে গাছে গাছে একটু আগে ভাগেই আসতে শুরু করেছে আমের মুকুল। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে চলতি বছরে আমের বাম্পার ফলনের আশা করছেন এ অঞ্চলের চাষীরা।
বেশ কিছু এলাকায় আম গাছে উঁকি দিচ্ছে আমের মুকুল। বাতাসেও যেন মুকুলের মৌ মৌ সুবাস বইছে। মুকুলের পরিমাণ কম হলেও ইতোমধ্যে আম চাষিরা পরিচর্যা শুরু করেছেন বাগান মালিকরা।
সরেজমিনে দেখা গেছে, বানেশ্বর,দুর্গাপুর,বাঘা,চারঘাট,পুঠিয়া,বাগমারা,গোদাগাড়ী সহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় গাছে গাছে আগাম উঁকি দিচ্ছে আমের মুকুল

বাতাসেও যেন মুকুলের মৌ মৌ সুবাস বইছে। মুকুলের পরিমাণ কম হলেও ইতোমধ্যে আম চাষিরা পরিচর্যা শুরু করেছেন বাগান মালিকরা।
সরেজমিনে দেখা গেছে, বিভিন্ন এলাকার আম গাছে আগাম মুকুল শোভা পাচ্ছে। আমের মুকুলে এখন মৌমাছির গুঞ্জন। মুকুলের মিষ্টি ঘ্রাণ যেন জাদুর মতো কাছে টানছে চাষিদের মন।
প্রতিটি শাখা-প্রশাখায় চলছে ভ্রমরের সুর ব্যঞ্জনা। শীতের স্নিগ্ধতার মধ্যেই শোভা ছড়াচ্ছে স্বর্ণালী মুকুল গুলো।
আম চাষিরা জানান, আগাম মুকুল দেখার পর থেকে মনটা ভালোই লাগছে। এই মুকুল বেঁচে থাকলে গতবারের ন্যায় এবারও বাম্পার ফলন পাওয়া যাবে। তবে ঘন কুয়াশা থাকলে মুকুল পঁচে নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।
ইতোমধ্যে মাঘ তার শীতের দাপট দেখাতে শুরু করেছে। সেই সাথে ঘন কুয়াশার চাঁদরে ঢেকে দিচ্ছে গোটা দেশ। এ কারনেই আম চাষে বাম্পার ফলনের আসা থাকলেও ঘন কুয়াশাকে নিয়ে চিন্তিত রয়েছেন আম চাষিরা।

কৃষি কর্মকর্তারা বলেন, প্রতি বছরই কিছু আমগাছে আগাম মুকুল আসে। এবারও আসতে শুরু করেছে। ঘন কুয়াশার কবলে না পড়লে এসব গাছে আগাম ফলন পাওয়া যায়। আর আবহাওয়া বৈরী হলে ফলন মেলে না। তবে নিয়ম মেনে শেষ মাঘে যেসব গাছে মুকুল আসবে সেসব গাছে মুকুল স্থায়ী হবে।
আম চাষিরা বলেন, আম গাছে আগাম মুকুল বাতাসে মিশে মৌ মৌ গন্ধ ছড়াতে শুরু করেছে। যে গন্ধ মানুষের মনকে বিমোহিত করছে।

নির্ভীক সংবাদ ডটকম

Total view = 322