শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০১:১৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
গোয়ালকান্দি ইউনিয়ন বাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আ.লীগ নেতা মাহাবুর সরকার মেম্বার নওপাড়া ইউপি বাসীসহ সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম রাজশাহী জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদকের সাথে সৌজন্যে সাক্ষাৎ করলেন জাহাঙ্গীর হোসেন এবার ঈদে নন-এমপিও শিক্ষকদের জন্য সুখবর হৃতদরিদ্র দুঃস্থদের মাঝে ভালুকগাছী ইউপি ছাত্রলীগের ঈদ উপহার বিতরণ ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ৪০ কিলোমিটার যানবাহনের চাপ রাজশাহীতে হিসাবরক্ষণ অফিসারকে প্রাণ নাশের হুমকির অভিযোগ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সাবেক সাংসদ মেরাজ উদ্দিনের মৃত্যুতে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন এর শোক করোনায় মানুষের ঈদযাত্রা উদ্বেগজনক: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর দুর্গাপুরে হৃতদরিদ্র দুঃস্থদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

সাংসদ পাপুলের চার বছরের জেল

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২৮ Time View

নির্ভীক সংবাদ ডেস্ক: কুয়েতে মানব ও অর্থ পাচারের দায়ে বাংলাদেশের সাংসদ কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের চার বছরের সশ্রম কারাদণ্ড হয়েছে। এর পাশাপাশি লক্ষ্মীপুর–২ আসনের স্বতন্ত্র এই সাংসদকে ১৯ লাখ কুয়েতি রিয়াল বা ৫৩ কোটি ১৯ লাখ ৬২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার কুয়েতের ফৌজদারি আদালত বাংলাদেশের সাংসদের বিরুদ্ধে এই রায় দেন। কুয়েতের আদালত ও কূটনৈতিক সূত্রে সন্ধ্যায় এ তথ্য জানা গেছে।
কুয়েতের ফৌজদারি আদালতের বিচারক আবদুল্লাহ আল ওথমান বাংলাদেশের সাংসদের পাশাপাশি সে দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরখাস্ত হওয়া কর্মকর্তা মেজর জেনারেল মাজেন আল জারাহকেও শহিদ ইসলামের মতো চার বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১৯ লাখ কুয়েতি রিয়াল জরিমানা করেন। প্রভাবশালী ওই জেনারেল বাংলাদেশের সাংসদকে অনৈতিকভাবে ব্যবসা পরিচালনায় মদদ দিয়েছিলেন।

মানব ও অর্থ পাচারের অভিযোগে শহিদকে গত বছরের ৬ জুন রাতে তাঁর কুয়েত সিটির বাসা থেকে সে দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তারা আটক করেন।
এর আগে লক্ষ্মীপুরের মানুষ সাংসদ শহিদকে দানবীর হিসেবে জানতেন। এলাকার লোকজন জানান, ১৯৮৯ সালে একটি প্রতিষ্ঠানের সুপারভাইজার (শ্রমিকদের তত্ত্বাবধায়ক) হিসেবে চাকরি নিয়ে কুয়েত যান শহিদ। তখন তিনি ছিলেন অনেকটা নিঃস্ব। ১৯৯০ সালে ইরাকের কুয়েত দখলের কারণে তিনি দেশে ফিরে আসেন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে শহিদ আবার কুয়েতে যান।

এলাকার লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর ও কুমিল্লার বিভিন্ন অঞ্চল থেকে শত শত মানুষকে চাকরি দেবেন বলে কুয়েতে পাঠানো শুরু করেন কাজী শহিদ। কুয়েতের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আদম ব্যবসায় নামেন তিনি। মারাফি কুয়েতিয়া গ্রুপ অব কোম্পানির নামে তিনি জনশক্তি রপ্তানি শুরু করেন। একসময় এই প্রতিষ্ঠানের কর্মী ছিলেন তিনি।

সূত্র:প্রথম আলো

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 nirviksangbad24.com
Design & Developed by: ATOZ IT HOST
Tuhin