• মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০৯:৪৯ অপরাহ্ন



দুর্গাপুরে সাংবাদিকদের নিয়ে বিরুপ মন্তব্যের ভুল স্বীকার করলেন মেয়র তোফাজ্জল

Reporter Name / ৩১ Time View
Update : শনিবার, ৬ মার্চ, ২০২১



দুর্গাপুর প্রতিনিধি : রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে বিরুপ মন্তব্য করায় দুঃখ প্রকাশ ও ভুল স্বীকার করেছেন দুর্গাপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র তোফাজ্জল হোসেন। তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকও। তোফাজ্জল হোসেন। শুক্রবার বিকেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাধারণ আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলামের আমন্ত্রণে স্থানীয় সাংবাদিকদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় এই দুঃখ প্রকাশ ও ভুল স্বীকার করেন মেয়র তোফাজ্জল।

সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন।

মতবিনিময় সভায় গত ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত দুর্গাপুর পৌরসভা নির্বাচনের দিনে একটি অনলাইন টিভি চ্যানেলে স্থানীয় সাংবাদিকদের নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করে সাক্ষাৎকার দেন মেয়র তোফাজ্জল হোসেন। এতে স্থানীয় সাংবাদিকরা ক্ষুব্ধ হোন। মেয়র তোফাজ্জলের এমন মনগড়া ও উদ্দেশ্যমূলক বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন করে ৫ দফা দাবি পেশ করেন সাংবাদিক নেতারা। গত বুধবার মানববন্ধন করার পর উপজেলা আওয়ামী লীগে সভাপতি নজরুল ইসলাম বিষয়টি দেখবেন বলে সাংবাদিকদের আশ্বস্ত করেন। এরপরই শুক্রবার বিকেলে সাংবাদিকদের নিয়ে মতবিনিময় সভা করেন তিনি।

মতবিনিময় সভায় মেয়র তোফাজ্জল হোসেন বলেন, নানান কারনে তিনি নির্বাচনের দিন বিব্রত ছিলেন। নানান লোকজন তাকে বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়েছেন যাতে করে তিনি স্থানীয় সাংবাদিকদের নিয়ে ভুলবশত বিরুপ মন্তব্য করেন। সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে এমন বিরুপ মন্তব্যের কারণে ভুল স্বীকার করে দুঃখ প্রকাশ করেন মেয়র তোফাজ্জল হোসেন।

তিনি বলেন আরো বলেন, ওই দিন (২৮ ফেব্রুয়ারি ভোটের দিন) আমি আমার নিজস্ব ভোটকেন্দ্র ধরমপুরে অবস্থান করছিলাম। আমি লোক মারফত কাঁচুপাড়া ভোট কেন্দ্রের গোলযোগের কথা জানতে পারি। আমি পুরো বিষয়টি পরিস্কার হওয়ার আগে একটি টিভি চ্যানেলের সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে আমার সাথে কথা বলে আমার সাক্ষাৎকার নিতে নানা ধরনের বিভ্রান্তিকর প্রশ্ন ছুড়ে আমাকে উত্তেজিত করেন।

এ সময় আমি তাদের সাথে কিছু কথা বলেছি যা তারা গোপনে ভিডিও করে এডিটের মাধ্যমে আমার বক্তব্যটি বিকৃত ভাবে উপস্থাপন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। যাতে করে স্থানীয় সাংবাদিকরা ক্ষুব্ধ হোন। ওই দিনের দিনের ঘটনাটি নিছক ভুল বুঝাবুঝি। সাংবাদিকরা অতীতেও যেমন আমাদের পাশে ছিল আগামীতেও সব কাজে পাশে থাকবে এমনটাই প্রত্যাশা করেন মেয়র।

মেয়র তোফাজ্জল ভুল স্বীকার ও দুঃখ প্রকাশ করায় এ উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা ৫ দফা দাবি সহ তাদের সকল কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নেন।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম অনভিপ্রেত এ ধরনের ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, অতীতেও সাংবাদিকরা সকল ভালো কাজে অংশ নিয়েছেন। আগামীতেও থাকবেন এমন প্রত্যাশা করে তিনি বলেন, আমরা একই এলাকার মানুষ। সকল ভুল বুঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে আমাদের সবাইকে এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য একেএম শামসুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি শাহাদত হোসেন, বর্তমান সভাপতি শফিকুল ইসলাম মিঠু, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শরিফুজ্জামান শরিফ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাজেদুর রহমান মিঠু,

সাংবাদিক নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দুর্গাপুর প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও সাবেক সভাপতি রবিউল ইসলাম রবি, সাবেক সভাপতি মোবারক হোসেন শিশির, এসএম আমিনুল ইসলাম, মিজান মাহী, এসএম শাহাজামাল, গোলাম রসূল, সদস্য গোলাম কিবরিয়া, জুবায়ের হোসেন তুহিন, শাহিন আলম, ফরিদ আহমেদ আবির, মসিউর রহমান, আব্দুল খালেক, শাহাব উদ্দিন প্রমুখ।

নির্ভীক সংবাদ ডটকম




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category